সুভা গল্পের পরিচিতি উল্লেখ কর

সুভা লিখেছেন রবিন্দ্রানাথ   ঠাকুর। 

সুভার সম্পুর্ন নাম সুভাষিণী।

কিন্তু সুভা কথা বলতে পারত না।

তার বড় দুই বোনের নাম সুহাষিণী ও সুকেষিণী।

তাদের বাবা নামের মিলের জন্য সুভাষিণি রাখেন।

তবে সবাই তাকে সুভা বলে ডাকে।

সুভার বড় দুই বোনের বিয়ে হয়ে যা। 

কিন্ত সুভা তার পরিবারের নিরব হ্রিদয় ভার।

 সুভার গ্রামের নাম চন্ডিপুর।

সুভার গোয়াল ঘরে দুটি গাভী আছে।

তাহাদের নাম সর্বশী ও পাঙ্গুলি।

সে নিয়মিত গোয়াল ঘরে যেত।

সে আবার তাদের বাড়ির পাশের নদীর তীড়ে বসে থাক্ত।

সে তার সাথি প্রতাপের জন্য একটি করে পান বানিয়ে রাখত।

সুভার সাথে কেউ মিশে নাহ,খেলে নাহ।

এই গল্পে কবি মূলত প্রতিবন্ধি মানুষের আশ্রয়ের জন্য একটি জগত তৈরি করে রেখেছেন। তাদের প্রতি আমাদের মমতবোধ ঘটাতে চেয়েছেন।